মরসুমী ফুল

আজ আমাদের সরস্বতী পুজো

 

শেষ কিছুদিন শীতের ম্যাড়ম্যাড়ে ইনিংস চলার পর ফের ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিচ্ছে শীত। এরই মধ্যে বাগদেবী বাহন সমেত এসে হাজির।  স্কুল-কলেজ-বাড়ি নির্বিশেষে সর্বত্রই জমিয়ে চলছে সরস্বতী পুজো। রং-বেরঙের আলপনা ও বাহারি ফুলের গাছে সেজে উঠেছে স্কুল-প্রাঙ্গণ। এদিকে পুজোর আনুষঙ্গিক পসরার বিকিকিনিতেও বাজার সরগরম। এবার দু’দিনের সরস্বতী পুজোয় লাভের মুখ দেখছেন কচি-কাঁচা থেকে পুরোহিত সব্বাই।

 

সরস্বতী পুজো মানেই আমাদের মনে ফিরে ফিরে আসে কুল পাড়ার নস্টালজিয়া। অবশ্য মফঃস্বলেও এখন আর সেই পরিমাণ কুল গাছ চোখে পড়ে না। সেই সব নস্টালজিয়ার স্থান পূরণ করেছে ডিজে’র শব্দযন্ত্রণা। সরস্বতী তো শুধুই বিদ‍্যা-সংস্কৃতির দেবী নন, প্রেমেরও দেবী বটে ! পাশ্চাত্য সংস্কৃতির অনুকরণে ভ‍্যালেন্টাইনস্ ডে পালনের আগে এই দিনটিই ছিল বাঙালির একমাত্র প্রেম দিবস। তবুও এখনও অনেকের কাছেই মনের মানুষকে তার ভালবাসার কথা বলার একমাত্র বিকল্প সরস্বতী পুজো। তাই তরুণ প্রজন্মের কাছে দিনটি শুধু উপোস করে বাগদেবীকে পরীক্ষায় পাশ করিয়ে দেওয়ার আর্তি জানানোর দিনই নয়। বরং ভালবাসার মানুষকে প্রেমের ভাষা বোঝানোর পরীক্ষায় পাশ করার দিনও বটে!

Promotion