EXCLUSIVE NEWS

শ্রীরামপুরের মাটি ফের জানান দিলো, “এই দেশ কারও বাপের নয়”

 

এনআরসি’র বিরোধিতায় আগেও বেশ কিছুবার পথে নেমেছে হুগলি জেলার অন্যতম জনপদ শ্রীরামপুর। বৃহস্পতিবার ফের সাংস্কৃতিক অবস্থানে দেখা গেল শ্রীরামপুরের নাগরিকদের। শ্রীরামপুরের ঐতিহ্যমণ্ডিত সেন্ট ওলাভ চার্চের সামনে আয়োজিত হয় এদিনের কর্মসূচি, সৌজন্যে শ্রীরামপুর নাগরিক সমাজ। শুধু এনআরসি বা ক্যা বিরোধিতাই নয়, বেলা ১২ টা থেকে সন্ধ্যে ৬ টা পর্যন্ত চলা অনুষ্ঠান গর্জে উঠলো ফ্যাসীবাদের বিরুদ্ধেও।

ছাত্র-যুব থেকে শুরু করে অধ্যাপক-ডাক্তার-শিল্পী সকলেই এদিন অংশগ্রহণ করেন তাদের সংস্কৃতিকে হাতিয়ার করে। পাহাড় থেকে সাগর পর্যন্ত নাগরিক পঞ্জি বিরোধী যুক্তমঞ্চের যাত্রা কিছুদিন আগেই শিরোনামে এসেছিল। সেই যাত্রায় সামিল হওয়া ছাত্র সায়ন দর্শকদের সঙ্গে ভাগ করে নিলেন তার অভিজ্ঞতা। বিশিষ্ট মনোবিদ মোহিত রনদীপ কেন্দ্রীয় সরকারের ফ্যাসিস্ট নীতির সমালোচনা করে একজোট হওয়ার ডাক দেন। সমগ্র অনুষ্ঠানটিকে সঞ্চালনার মাধ্যমে বেঁধে রাখার পাশাপাশি লড়াকু বার্তা দেন সৌরভ দত্ত। কবিতা পরিবেশন করেন বাচিক শিল্পী পিয়ালী পাঠক। সঙ্গীত পরিবেশন করেন উপমা, মলি গোস্বামী, প্রিয়াঙ্কা, জয়শ্রী, স্নেহা, বিষ্ণু বিশ্বাস, অনিলেশ গোস্বামী, ধ্রুব বাগচী এবং পার্থসারথী রায়। সাম্প্রতিক পরিস্থিতির পর্যালোচনা করে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন কবি মৃদুল দাশগুপ্ত, অধ্যাপক সুবীর দাশগুপ্ত, মৃন্ময় সেনগুপ্ত, অধ্যাপক দেবাশিষ মল্লিক, অধ্যাপক ভাস্কর চৌধুরী, কিরীটি রায়, প্রণব বসু রায় প্রমুখ।

 

Promotion