কাটাকুটি

রিভিউঃ চেনা অচেনার পুজো

চেনা অচেনার পুজো, এই স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবিটি কিছুদিন আগেই মুক্তি পেল। এটির নির্দেশক তানিয়া অধিকারী এবং সম্পাদনার কাজ করেছেন পরিতোষ শিকদার। এটি Infinite Creation ইউটিউব চ্যানেলের তরফে বড়দিনের দিন মুক্তির প্রহর চাক্ষুষ করলো।

শর্ট ফিল্মটিতে বলার মতো জায়গা রয়েছে শুধুমাত্র বিষয়বস্তু। দুর্গাপুজো নিঃসন্দেহে আমাদের কাছে আনন্দের। কিন্তু সকলের কাছেই কি পুজো আনন্দ পৌঁছে দিতে পারে? এ কলকাতার মধ্যেই যে আরেকটা কলকাতাও বাঁচে সেটিকেই তুলে ধরার আপ্রাণ চেষ্টা করা হয়েছে এই স্বল্প দৈর্ঘ্যের ছবিতে।

ভাবনা পরিবেশন এবং এডিটিং অত্যন্ত দুর্বল। অভিনয় মোটামুটি উতরে গেলেও আরও ভালো করাই যেত। আজকাল আমাদের চোখ ও মস্তিষ্ক কী খাওয়া হচ্ছে তার থেকেও বেশি গুরুত্ব দেয়, কীভাবে সেটি পরিবেশিত হচ্ছে। শর্ট ফিল্মের ক্ষেত্রেও সেই একই কথা খাটে। তবে চেনা অচেনার পুজোয় দুর্গার মতো দশভূজা বলাই যেতে পারে তানিয়া অধিকারীকে। তার থেকেই জানা গেল, ছবির স্ক্রিপ্ট লেখা এবং আবহ পাঠ, ভাবনা, অভিনয়, ক্যামেরার কাজের অধিকাংশই তিনি একাই করেছেন। তিনি আরও বললেন; কালীঘাট, বালিগঞ্জ, বোসপুকুর, যাদবপুর, নন্দীবাগান সহ কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে ফুটেজ সংগ্রহ করেছেন। ইতিমধ্যেই এই ছবি একটি শর্ট-ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের স্বীকৃতি পেয়েছে।

তাই সবশেষে বলতেই হয়, প্রায় একার লড়াইয়ে দাঁড় করানো এই প্রথম প্রচেষ্টা কোনওরকমে পাশ করলেও একেবারেই টুকে পাশ করেনি। তাই সেই লড়াইকে কুর্নিশ জানিয়ে, কিছু সময় নষ্ট করে দেখাই যেতে পারে চেনা-অচেনার পুজো।

Promotion