EXCLUSIVE NEWS

মোদীর কাগজ দেখতে রাজভবন অভিযানের ডাক, বিজেপির কটাক্ষ

 

শনিবার কলকাতা পৌঁছবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ইতিমধ্যেই বৃষ্টিকে আরও একবার বিদায় জানিয়ে জোরকদমে চলছে শীতের ইনিংস। যদিও মোদীর এই বাংলা-সফর ঘিরে ঘুরপাক খাচ্ছে আশঙ্কার মেঘ। মনে করা হচ্ছে, কলকাতা আজ ফের এনআরসি বিরোধিতায় রাস্তায় নামবে। ইতিমধ্যেই ফেসবুকে জ্বলজ্বল করছে একাধিক ইভেন্ট। একদিকে যেমন দমদম বিমানবন্দরে দেখানো হবে বিক্ষোভ, সেই সঙ্গে রাজভবন অভিযানের ডাক দিয়েছে মহানগরীর ছাত্র-যুব’রা। এই অভিযানগুলির ডাক দেওয়া একাধিক মঞ্চ এবং সাধারণ ছাত্র-যুবদের তরফে গবেষক দেবর্ষি জানিয়েছেন, নরেন্দ্র মোদী যে কলকাতার মাটিতে স্বাগত নন, সেটি সবরকমভাবে প্রতিরোধ করে বুঝিয়ে দেওয়া হবে। আশা করছি, এই কথা তিনি এতোক্ষণে বুঝে গিয়েছেন। তাই ভয় পেয়ে ঘন ঘন রুট বদল করছেন। তার ভাষায়, “আমরা বলতে চাই, দেশকে যিনি ধর্ম এবং জাতের নামে ভাগ করছেন, তিনি কখনোই আমাদের প্রধানমন্ত্রী নন। সেই কথাই আজ হাজার হাজার সাধারণ মানুষ রাস্তায় নেমে বলবেন।”

 

অন্য দিকে ভারতীয় জনতা যুব মোর্চার সভাপতি দেবজিৎ সরকার বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে কালো পতাকা দেখাবেন পাকিস্তানীরা। ভালোই তো! মানুষ দেখুক, এই ছুপা ভারত-বিরোধীরা এতদিন কোথায় ছিল? কীভাবে ছিল? প্রধানমন্ত্রী বিজেপির কোনও কর্মসূচিতে যোগ দিতে আসছেন না। কলকাতা পোর্ট ট্রাস্ট দেড়শো পূর্তি এবং ট্যাঁকশালের একটি মিউজিয়ামের উদ্বোধনে তিনি আসছেন। বিবেকানন্দের জন্ম-জয়ন্তীতে যোগ দিতে রবিবার তিনি বেলুড় মঠে যাচ্ছেন। তাতে তাঁকে গো-ব্যাক বললে তো কিছু এসে গেল না। সারা ভারত তাঁকে ওয়েলকাম করেছেন বলেই তো তিনি আজ দেশের প্রধানমন্ত্রী। যারা পার্লামেন্টকে শুয়োরের খোঁয়াড় বলেন, তাদের থেকে কি গণতন্ত্র আশা করতে পারেন?

 

 

 

Promotion