কলমের শক্তি

কবিতা – দ্বেষদ্রোহ

তুমি তো শহর এমন ছিলে না আগে

তোমার বুকেই গোপন কথারা জাগে,

ভালোবাসা কানাকানি সব দু’হাত পেতে নিতে

হঠাৎ কী হল? চুপ করে গেলে রাগে?

 

কতো ধর্মের কতো জল্লাদের মতো মাতালের লাফালাফি

একদিন সব থেমেও গেছে হেরেছে পাশার ঘুঁটি।

 

শহর! তোমার দূষণ কেবল নেই বাতাসে আটকে

ছড়িয়েছে তা বহুদিন আগেই পচনশীল মস্তিষ্কে

ছোট থেকেই শুনি হবে একটা –

ভীষণ রকম যুদ্ধ

অস্ত্র দিয়ে যুদ্ধ না হয়ে, প্রেম দিয়ে হোক যুদ্ধ!

হওনা তুমি দেশপ্রেমিক কিংবা কমিউনিস্ট

বাজি রেখে বলছি –

রণক্ষেত্রের চেয়েও প্রিয় –

তোমার প্রেমিকার লিপস্টিক।

না, না এতে দোষ কিছু নেই –

দোষ তো তোমায় দেওয়া হয়্‌

তুমি ঠিক হলে ব্যালট বাক্সের

পিছিয়ে পড়ার ভয়।

তোমার আমার গোপন হৃদয় জানেনা রাজার নীতি

উলুখাগড়া আমরা সবাই গতর খাটিয়ে বাঁচি।

 

ফেসবুকেতেই দেখা হয় বেশি, বাইরেতে আর কতো?

যার যা খুশি লিখুক না সেখানে – যেমন ইচ্ছে মতো।

এই ফাগুনও বিবর্ণ আজ তোমার প্রতীক্ষায়

রাঙিয়ে দিয়ে যাও –

ভাসিয়ে দিয়ে যাও –

প্রেম ঝরে পড়ুক এই গ্রহটায়।