Notice: Undefined index: status in /home/dailynew7/public_html/exclusiveadhirath.com/wp-content/plugins/easy-facebook-likebox/easy-facebook-likebox.php on line 69

Warning: Use of undefined constant REQUEST_URI - assumed 'REQUEST_URI' (this will throw an Error in a future version of PHP) in /home/dailynew7/public_html/exclusiveadhirath.com/wp-content/themes/herald/functions.php on line 73
রিদম ডিভাইন শ্রীরামপুরে জ্বাললো কথাকলির পিদিম, অফিসিয়াল মিডিয়া পার্টনার এক্সক্লুসিভ অধিরথ - Exclusive Adhirath
Official Media Partner

রিদম ডিভাইন শ্রীরামপুরে জ্বাললো কথাকলির পিদিম, অফিসিয়াল মিডিয়া পার্টনার এক্সক্লুসিভ অধিরথ

শ্রীরামপুর শহরের আনাচে কানাচে কান পাতলেই শোনা যাচ্ছে একটি কথাই বারংবার। খানিক এরকমই বক্তব্য মানুষজনের, “বলছি কিছুদিন আগেই তো ওই কথাকলি নাচের ওপর কী একটা প্রোগ্রাম যেন হয়ে গেল? রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলাম, চোখে পড়লো”। হ্যাঁ, এতদিনে সিংহভাগ শহরবাসীই টের পেয়ে গিয়েছেন, তাদেরই শহরের নৃত্য প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ‘রিদম ডিভাইন’ প্রথমবারের জন্য শহরের বুকে নিয়ে আনলো কথাকলি নৃত্যশৈলীকে। ২২ মে থেকে ১ জুন পর্যন্ত চলল এই কর্মযজ্ঞ যার মূল পুরোহিত ছিলেন বিশিষ্ট কথাকলি নৃত্যশিল্পী রম্যাণী রায়।

মোট ১৭০ জনেরও বেশি শিক্ষার্থী অংশ নেন এই ওয়ার্কশপে যার পোশাকী নাম ছিল ‘সাধনা’। গত ১ জুন ছিল এই কর্মশালায় প্রাপ্ত শিক্ষা উপস্থাপনা করার সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। ওডিশি নৃত্যশিল্পী সুবিকাশ মুখার্জী এবং প্রখ্যাত কথাকলি নৃত্যশিল্পী কলামন্ডলম গৌতম বিশেষ অতিথি হিসেবে হাজির ছিলেন এই বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানে। অনুষ্ঠানে এসে সবাইকে উৎসাহ দিয়ে যান শ্রীরামপুরের বিধায়ক সুদীপ্ত রায়। ‘রিদম ডিভাইন’-এর পক্ষ থেকে ‘ভরত মুনি’ সম্মান দেওয়া হয় বিশিষ্ট মেক-আপ শিল্পী নির্মলেন্দু সরকারকে।

এই কর্মশালার শিক্ষার্থীদের বয়স অনুযায়ী তিনটি তালিকায় ভাগ করা হয়েছিল। ৫ থেকে ৮ বছর, ৯ থেকে ১৪ বছর এবং ১৪ বছর বয়েস থেকে তার বেশি যে কোনও বয়েসের শিক্ষার্থীরা কথাকলির তালিম নেন। এই তিনটি বিভাগই এদিন মাত্র ৯ দিনের প্রশিক্ষণে শিক্ষার বীজ রোপণ করে মুন্সিয়ানার ফসল ফলালেন মঞ্চে। আর অবাক হয়ে দর্শকরা উপভোগ করলেন একের পর এক পারফরম্যান্স। সায়ন্তী মণ্ডলের নজরকাড়া উপস্থাপনা তাক লাগালো দর্শকদের মনে। এই সন্ধ্যায় গৌড়ীয় নৃত্যের অসামান্য উপস্থাপনা যোগ করলো এক অনন্য মাত্রা। কলামন্ডলম গৌতম অত্যন্ত সাবলীল ভঙ্গীতে শোনালেন কথাকলির জন্মকথা। অবশেষে এলো বহু প্রতীক্ষিত সেই মুহূর্ত। কর্মশালাটির প্রশিক্ষিকা রম্যাণী রায় এবং প্রলয় সরকার ‘দুর্যোধনা বধম’ উপস্থাপনা করলেন। রঙিন মুহূর্তরা অভিনয় ও নৃত্য পারদর্শিতার অভিনব যুগলবন্দীর সাক্ষী রইলো। উপস্থাপনা শেষে দর্শকদের বাঁধ ভাঙা উচ্ছ্বাস বুঝিয়ে দিল, শ্রীরামপুর প্রথমবারের জন্য কথাকলি’র পিদিম জ্বালিয়ে ঠিক কতোটা গর্বিত! এভাবেই এক নতুন যাত্রা শুরু হল, যেখানে বলাই যায় এদিনের অনুষ্ঠান “শেষ হইয়াও হইলো না শেষ”।

 

Promotion