EXCLUSIVE NEWS

পশ্চিমবঙ্গের এই জেলায় রমরমিয়ে চলছে অবৈধ মদের ব্যবসা

 

দিনদুপুরে রাস্তার ধারে, ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে ওঠা হোটেল ও দোকানগুলিতে রমরমিয়ে চলছে অবৈধ মদের ব্যবসা। এই সব দোকানের নেই কোনও লাইসেন্স। অথচ প্রকাশ্যেই দেদার বিক্রি হচ্ছে মদ। দক্ষিণ দিনাজপুরের বুনিয়াদপুর ও গঙ্গারামপুরে আইনকে কার্যত বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে বাস্তবে ঘটছে এটিই। বিশেষ সূত্রে খবর, থানায় ও আবগারি দপ্তরের কিছু অসাধু আধিকারিককে মাসিক টাকা দিলেই মদ বিক্রির টেন্ডার পাওয়া যায়। থানার পুলিশ কর্মীদের খুশি করতে এই সব হোটেলের মালিকরা নামি দামী বিদেশি মদ খাওয়ান। মাঝে মধ্যেই যদিও নিয়ম মাফিক বা লোক দেখানো অভিযান চালিয়ে হোটেল বা দোকানে চালিয়ে মদ আটক করা হয়। কিন্তু তারপর কোনও এক অজানা কারণে মদ ব্যবসায়ী ছাড়া পেয়ে বুক চিতিয়ে আবার মদ বিক্রি করতে থাকেন।

এই হোটেলগুলিতে দশ টাকার খদ্দের থেকে শুরু করে হাজার টাকা বা তারও বেশি টাকার খদ্দের আসেন। সন্ধ্যা হতেই সেখানে ভিড় জমায় অল্পবয়সি যুবক। তাদের জন্য আরাম করে পানের জন্য চলতি ভাষায় ‘কেবিন’ রয়েছে। প্রায়ই মদের আসরগুলিতে গন্ডগোলের খবর শোনা যায়। আর এইসব কিছুই ঘটছে প্রশাসনের নাকের ডগায়।  স্থানীয় বাসিন্দাদের বক্তব্য, মদের আসরের জন্য যুবসমাজের ভবিষ্যত তলিয়ে যাচ্ছে অন্ধকারে। ২০১৫ সালে কালীপুজোর রাতে বুনিয়াদপুরে এক যুবক খুন হয়। তারপরও টনক নড়েনি প্রশাসনের। প্রত্যেকের দাবী, প্রশাসনের পক্ষ থেকে দ্রুত অবৈধ মদ ব্যবসা বন্ধ করা দরকার।

প্রতিবেদক – পল মৈত্র

Promotion