EXCLUSIVE NEWS

‘একুশে বামফ্রন্ট’! নিছক ফেসবুক গ্রুপ নয়, এ যেন ফ্যাসিস্ট মানসিকতার বিরুদ্ধে যৌথতার ব্যারিকেড!

 

ফেসবুকের মত সোশ্যাল মিডিয়া যে কোনও রাজনৈতিক দলের কাছেই এখন হয়ে উঠেছে এক অন্যতম অস্ত্র। খুব স্বাভাবিক ভাবেই ব্যতিক্রম নয় বামফ্রন্টও। ‘একুশে বামফ্রন্ট’ নামের একটি ফেসবুক মঞ্চ সম্প্রতি আত্মপ্রকাশ করেছে। এটির উদ্যোক্তাদের দাবি, ‘একুশে বামফ্রন্ট’ মূলতঃ একটি প্রচারমূলক গ্রুপ যা অষ্টম বামফ্রন্ট সরকারকে একটি বাস্তবসম্মত এবং সময়ের দাবী হিসাবে প্রতিষ্ঠা করতে বদ্ধপরিকর। চলতি বছরের ২৬ জুন তৈরী হওয়া গ্রুপ বর্তমানে শুধুমাত্র ফেসবুক গ্রুপের পরিচয় ছাড়িয়ে এক অল্টারনেট মিডিয়া হিসাবে কাজ করছে। পশ্চিমবঙ্গের মিডিয়া, যা মূলতঃ কর্পোরেট পুঁজি দ্বারা নিয়ন্ত্রিত এবং রাজনৈতিক পরিসরে তৃনমূল বনাম বিজেপি- এই বাইনারিতে মানুষকে ভুল ভাবিয়ে বামপন্থীদের সামাজিক আন্দোলনগুলোকে ব্ল্যাকআউট করে দিতে চাইছে তার বিরুদ্ধে ‘একুশে বামফ্রন্ট’ একটা প্ল্যাটফর্ম। এই গ্রুপ লকডাউনের সময়ে তৈরী। সেই সময় বামপন্থীদের চালানো কমিউনিটি কিচেন, শ্রমজীবী ক্যান্টিন, জনতার বাজার, জনস্বাস্থ্য হেল্পলাইন এবং পাড়ায় পাড়ায় স্যানিটাইজেশন প্রোগ্রামের মত সামাজিক কাজকর্মগুলিকে প্রচারের আলোয় তুলে এনেছেন তাঁরা। গ্রুপটি এ পর্যন্ত বামফ্রন্টের চারটি মূল শরিক দলের বিভিন্ন কর্মসূচীর লাইভ , পোস্টারিং ক্যাম্পেন ইভেন্ট ইত্যাদি কভার করে এসেছে এবং এখনও সেই কাজ করে চলেছে। এই গ্রুপে নিয়মিত লেখালেখি করেন সিপিআইএম বিধায়ক তথা শিলিগুড়ির প্রাক্তন মেয়র কমরেড অশোক ভট্টাচার্য। সিপিআই নেতা তথা বামফ্রন্টের সময়ে অসামরিক প্রতিরক্ষা মন্ত্রী শ্রীকুমার মুখার্জি , প্রাক্তন সেচমন্ত্রী তথা আরএসপি নেতা সুভাষ নস্কর প্রমুখরা৷

 

এখানেই তালিকা শেষ নয়। গ্রুপের সাম্মানিক সদস্য হিসাবে রয়েছেন সিপিআইএম’র রাজ্যসভা সদস্য বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য্য , এআইএসএফ সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক ভিকি মাহেশ্বরী, ফরওয়ার্ড ব্লক সাধারণ সম্পাদক দেবব্রত বিশ্বাস। ফেসবুক লাইভে কিছুদিন আগেই এসেছেন এআইকেএসের যুগ্ম সম্পাদক এবং সিপিআইএমের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড বিজু কৃষ্ণন। এই গ্রু পের কাজের শিডিউল মূলতঃ দুভাগে ভাগ করা। দৈনিক খবরাখবর নিয়ে পোস্টার, ভিডিও মতামত এবং গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার ক্ষেত্র তৈরী করা, যা পরবর্তীতে প্রচারের কাজে ব্যবহৃত হতে পারে। সপ্তাহে তিনদিন, বামফ্রন্টের মূল চারটি শরিক দল থেকে ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে নেতৃত্ব/কর্মীদের লাইভের ব্যবস্থা করা। এছাড়া মাঝে মাঝে গ্রূপের সদস্য দের জন্য বিভিন্ন ইভেন্টের আয়োজন করা হয়। এই মুহূর্তে যেমন চলছে নারীর ক্ষমতায়ন বা জীবন যুদ্ধে জয়ী হওয়ার দৃষ্টান্ত মূলক উপাখ্যান নিয়ে ‘দেবীপক্ষ’।

 

ফেসবুক গ্রুপটির উদ্যোক্তারা আর জানান, যাদবপুরের শ্রমজীবী ক্যান্টিন কিংবা মণীষা বাল্মিকী নৃশংস ধর্ষণের প্রতিবাদে এআইডিডব্লিউএ’র সামাজিক আন্দোলন, উত্তরবঙ্গে তৃণমূল-বিজেপির বর্বর আক্রমণে চোখে চোখ রেখে লড়াই করা এসএফআই কর্মী শুভ্রালোক দাস, মেডিকেল ছাত্র অমৃত আর্য্যর লাইভ থেকে ডুয়ার্সের চা বাগানের শ্রমিকদের নিয়ে সিটু নেতা বিদ্যুৎ গুণের অনুষ্ঠান। সব মিলিয়ে একুশে বামফ্রন্ট পৌঁছতে চেষ্টা করছে শহর কলকাতার গন্ডি ছাড়িয়ে জেলায় জেলায়, গ্রামে, মফঃস্বলে। শুধু রাজনৈতিক পরিসরই নয়, বাম সাংস্কৃতিক চেতনায় উদ্বুদ্ধ চলচ্চিত্র পরিচালক কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়, নাট্যকার সৌরভ পালোধি, অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র, ফিল্ম এবং টিভির জগতে সুপরিচিত দেবদূত ঘোষ এনারা সকলেই একুশে বামফ্রন্ট গ্রুপের সদস্য। এছাড়াও একঝাঁক বামপন্থী ছাত্রযুব মুখকে নিয়ে সৃজন, ঐশী, দিপ্সীতা, প্রতিকুর, শতরূপ, সায়নদীপ,মীনাক্ষী, নওফেল মহাঃ সাফিউল্লা, সৈকত গিরি, সৌম্যদীপ সরকার, জামিউস সারিয়ত মল্লিক থেকে গৌতম পুরকাইত যাঁরা আগামীর পথপ্রদর্শক, বাম রাজনীতির ভবিষ্যৎ, তারা প্রায় সবাই-ই নিয়মিত যুক্ত গ্রুপের কার্যকলাপের সাথে। তাঁদের অমূল্য পরামর্শই এই গ্রুপের নতুন ছেলেমেয়েদের কাজ করার, সঠিক রাজনীতি বুঝে নেওয়ার অনুপ্রেরণা।

 

গ্রুপের বর্তমান সদস্যসংখ্যা প্রায় ৮০০০, পরিচালকমন্ডলীর অধিকাংশই তরুণ ছাত্রযুব কর্মী, সমর্থক। এখানে যেমন যাদবপুর, এনআরএসের ছাত্রছাত্রীরা রয়েছেন, তেমনই রয়েছেন সুদূর স্পেন থেকে রোবোটিক্সের বৈজ্ঞানিক বা রাজ্যের কোনও তরুণ গবেষক। গ্রুপের সদস্যরা মনে করেন, নিজেদের মধ্যে গ্রুপ নয়, বরং তৈরী করেছেন কমিউন। যেখানে সবাই সমান স্বাধীনতায় সোচ্চারে নিজের মতামত রাখেন, ছবি আঁকেন, পোস্টার বানান, লেখেন এবং চেতনায় ধরে রাখেন বামপন্থী কর্মসংস্কৃতি- ব্যক্তির আগে দল। ‘একুশে বামফ্রন্ট’ পেজের রিচ সদ্য এক লাখ ছুঁয়েছে,  সবমিলিয়ে ২০২১ সালে একটি স্বাধীন, দুর্নীতিমুক্ত এবং ধর্মনিরপেক্ষ বামফ্রন্ট সরকার গঠনের স্বপ্নকে বাস্তবে বাঁচার দম রাখতে চাওয়ার গ্রুপ একুশে বামফ্রন্ট। ফেসবুক জগতে রয়েছে অসংখ্য রাজনৈতিক গ্রূপ বা পেজ। তার মধ্যেই কিছু গ্রূপ নিজের স্বকীয়তায় উজ্জ্বল। তারই জ্বলন্ত নিদর্শন ‘একুশে বামফ্রন্ট’।

Promotion