EXCLUSIVE NEWS

‘বাংলাপক্ষে’র নেতা গর্গ চ্যাটার্জীকে কি কিডন্যাপের ছক কষছে বিজেপি? শুভাকাঙ্খী করলেন সাবধান!

বিজেপি তাকে অপহরণ ও মারধর করার চক্রান্ত করছে বলে গুরুতর অভিযোগ করলেন ‘বাংলা পক্ষ’র প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক গর্গ চট্টোপাধ্যায়। গত শুক্রবার রাত ফেসবুকে তার একটি পোষ্ট ভাইরাল হয়। তিনি সেখানে জনান বিজেপির অভ্যন্তর থেকে তার এক শুভাকাঙ্ক্ষী এই খবর দিয়েছে। যদিও সেই শুভাকাঙ্ক্ষীর নিরাপত্তার কথা ভেবেই তিনি তাঁর নাম প্রকাশ্যে আনেন নি।
প্রসঙ্গত উল্লেখ্য ‘বাংলা পক্ষ’ বাংলার এক জাতীয়তাবাদী সংগঠন। তাদের দাবী অনুযায়ী, তারা জাতিগত ভাবে বাঙালির সাংবিধানিক অধিকার কার্যকর করার আন্দোলন করে। এ হেন বাংলা পক্ষের অন্যতম মুখ গর্গ চট্টোপাধ্যায় রাজনৈতিক মহলে তৃনমূল নেতৃত্বের ঘনিষ্ঠ বলেই পরিচিত এবং সে বিষয়ে তার তরফেও কোনও রাখঢাক নেই। তবে বাংলা পক্ষের সদস্য হিসাবে বর্তমান রাজ্য সরকারকে বিভিন্ন নীতিকেও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি ঠোঁটকাটা এই নেতা। বর্তমানে এনআরসি নিয়ে বাংলা পক্ষ যথেষ্টই সক্রিয়। কিছুদিন আগেই ঠাকুরনগরে একটি সভায় অশান্তি শুরু হয়েছিল। বাংলা পক্ষ অভিযোগ করে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতিরা সভা পণ্ড করতে এমন কাজ করেছে। তাই বর্তমানে গর্গবাবুর এই অভিযোগ সহজে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।
গর্গ চ্যাটার্জীর পোস্টে কমেন্ট করে পাশে থাকার কথা জানিয়েছেন সকলেই। অনেকে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করার পরামর্শ দেন। বিজেপি সমর্থকরা অবশ্য এই অভিযোগ পুরোপুরি নস্যাৎ করেছে। বিজেপির অনেক কর্মীর মন্তব্য, “গর্গ চট্টোপাধ্যায় ও বাংলা পক্ষকে প্রতিপক্ষ হিসাবে মনেই করেনা বিজেপি”। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ অথবা অন্য কোনও নেতা এখনও পর্যন্ত এ ব্যাপারে মন্তব্য করেননি। তবে বিজেপির ছাত্র সংগঠন এবিভিপির যুগ্ম রাজ্য-সম্পাদক সুরঞ্জন সরকার প্রতিক্রিয়া দিলেন ‘এক্সক্লুসিভ অধিরথ’কে। তিনি বললেন, “আশা করি গর্গ চ্যাটার্জী নোংরা রাজনীতির খেলায় মাতবেন না। কারও প্ররোচনায় পা দেবেন না। এবিভিপি মনে করে বাঙালি-অবাঙালি কোনও প্রশ্ন এরাজ্যে থাকা উচিৎ নয়। প্রথমত আমি ভারতীয়।”  তবে যাই হোক, পশ্চিমবঙ্গের আগামী বিধানসভা নির্বাচনে বাঙালি জাতীয়তাবাদ যথেষ্টই প্রভাব ফেলবে তা একবাক্যে মানছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহল। সেই কারণেই পরিস্থিতির দিকে কম বেশী নজর রাখছে সমস্ত রাজনৈতিক দলই।

 

Promotion