জগতের বাহার

ভারতের এই মন্দিরে বিরিয়ানিই হল প্রসাদ!

বিরিয়ানির প্রতি আপনার ভালোবাসা কি আদি এবং অকৃত্রিম। বিরিয়ানি দেখলেই কি নিজেকে সামলাতে খুব কষ্ট হয়? সবসময়ই কি বিরিয়ানি খাওয়ার ফন্দি আঁটছেন? তাহলে জেনে রাখুন, দক্ষিণ ভারতের এক মন্দিরে চিকেন এবং মাটন বিরিয়ানিই হল একমাত্র প্রসাদ। সে আপনার বিশ্বাস হোক বা না হোক এই ঘটনা কিন্তু একশো শতাংশ খাঁটি।

তামিলনাড়ুর বিখ্যাত মাদুরাই শহর থেকে ৪৫ কিলোমিটার ভেতরে ভেদাক্কাম্পতি গ্রামে তিরুমঙ্গলাম তালুকে অবস্থিত এই মন্দির। এটির নাম মুনিয়ান্ডি স্বামী মন্দির। ৮৩ বছর ধরে ঐতিহ্য মেনে বিরিয়ানি প্রসাদ হিসাবে বিলি হয়ে আসছে। স্থানীয়দের বিশ্বাস, মন্দিরের দেবতা অনেকটা আপনাদের মতোই বিরিয়ানি-প্রেমী ছিলেন। তাই তাকে সন্তুষ্ট রাখতেই এই আজব নিয়ম। প্রত্যেক বছর জানুয়ারির ২৪ থেকে ২৬ তারিখ এই মন্দিরে এক বিশাল উৎসব হয়। সেখানে প্রধান ভোগ হিসেবে থাকে চিকেন এবং মাটন বিরিয়ানি। মন্দির সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রায় দু’হাজার কেজি চাল, আড়াইশো মুরগি এবং দু’শো খাসি লাগে বিপুল পরিমাণ বিরিয়ানির জন্য।

তবে এখানেই কিন্তু শেষ নয় এই বিরিয়ানির মাহাত্ম্য। দক্ষিণ ভারতে সুব্বা নাইডু নামে এক ব্যবসায়ী সাতের দশকে খুলে ফেলেন শ্রী মুনিয়ান্ডি বিলাস রেস্তোরাঁ। এই মুহূর্তে সাফল্যের শীর্ষে থাকা এই রেস্তোরাঁর হাজারটি শাখা ছড়িয়ে রয়েছে গোটা দক্ষিণ ভারত জুড়ে। আজও দিনের প্রথম ক্রেতার টাকা আলাদা করে সরিয়ে রেখে তা পাঠানো হয় মুনিয়ান্ডি স্বামী মন্দিরের তহবিলে।                                                                                                                                চিত্র ঋণ – দিব্যা দর্শিনী

Promotion