কাটাকুটি

রিভিউঃ আকিব হায়াতের হোক কলরব সিঙ্গলস ফেরালো প্রতিস্পর্ধী কলরবের স্মৃতি

২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘটে গিয়েছিলো একটি ব্যাপক ছাত্র আন্দোলন। ন্যায়ের দাবিতে গর্জে ওঠা শিক্ষার্থীদের দমাতে ঘৃণ্য একটি পন্থা বেছে নিয়েছিলো রাষ্ট্রযন্ত্র তথা পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ প্রশাসন। বিগত সময়ের অন্যতম সুসংগঠিত সেই আন্দোলন সামাল দিতে রাষ্ট্রীয় পেটোয়া বাহিনীর বদৌলতে হাসপাতালমুখী হন ৪০ জন। আন্দোলনের দাবানল ছড়িয়ে পড়ে ভারতের হায়দ্রাবাদ, মুম্বই, বেঙ্গালুরু ও দিল্লীতে৷

‘হোক কলরব’ গানটির মিউজিক ভিডিওটির সূচনায় সেই সময়ের একটি ধারণা দেওয়া হয়েছে৷ যদিও পদ্ধতিটি প্রচলিত এবং পূর্বেও বহুধিকবার ব্যবহৃত, তবুও এতে কিছুটা নতুনত্ব খুঁজে পেয়েছি। মিউজিক ভিডিওটির সিনেমাটোগ্রাফি ও সম্পাদনা সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে। তাছাড়া রেকর্ডিং, মিক্সিং, মাস্টারিংয়ের কাজটুকুও অত্যন্ত গ্রহণযোগ্য হয়েছে৷ গানের কথাগুলোতে অন্যরকম গাম্ভীর্য ও ছুটে চলার প্রেরণা খুঁজে পাওয়া যায়। এখানে এটা বলা প্রয়োজন, গানের অন্যতম সম্পদ এর ভোকালের বজ্রকণ্ঠ। ইন্ডিয়ান ও ওয়েস্টার্ন যন্ত্রসঙ্গীতের একটি গ্রহণযোগ্য ও মানানসই ফিউশন করা হয়েছে এর মিউজিকে। ব্যবহৃত হয়েছে পারকাশন। গিটারের ব্যবহারও অসাধারণ। রক ধাঁচের এই গানটির অন্তরাটি আকর্ষণীয়।

গানেটির রেকর্ডিং করেছে ইকো স্পেস জ্যাম হাব এন্ড স্টুডিওস। মিক্সিং এবং মাস্টারিং করেছেন দ্য অডিও রুমের সুদীপ্ত পাল। গানের মূল ভোকাল আকিব হায়াতের সাথে কন্ঠ দিয়েছেন আকিব, অঙ্কুর, নির্মাল্য, শুভজিৎ এবং সন্দীপন। সঙ্গীত আয়োজন করেছে আকিব হায়াত প্রজেক্ট। লিরিক্স, কম্পোজিশন, ভোকাল, অ্যাকোয়াস্টিক গিটারে ছিলেন আকিব হায়াত। কিবোর্ড এবং সাউন্ড ডিজাইনিং সামলেছেন অঙ্কুর ঘোষ। নির্মাল্য চৌধুরীর গিটারের মুন্সিয়ানাও এই গানের অন্যতম মূল আকর্ষণ। ব্যাস এবং ড্রাম বাজিয়েছেন যথাক্রমে শুভজিৎ দাস এবং সন্দীপন ভট্টাচার্য। চমৎকার সুন্দর মিউজিক ভিডিওটির সিনেমাটোগ্রাফি তৈরি ও সম্পাদনা করেছেন সোহম মন্ডল। দেবজৌতি কোলে (স্বস্তিক) ছিলেন কালারিস্ট হিসেবে। শ্রীতমা মন্ডল দেখেছেন মেকআপ এবং স্টাইলিং৷ তাছাড়া পুরো আয়োজনে অন্যতম সহযোগী ব্যক্তিত্ব দীপন বিশ্বাসের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে আকিব হায়াত প্রজেক্ট৷

বলে রাখা প্রয়োজন, আমি বাংলাদেশের একজন শিক্ষার্থী। দুর্ভাগ্যবশত অথবা সৌভাগ্যবশত আমার ‘শিক্ষার্থী’ সত্ত্বার জন্ম বৃহত্তর ভারত উপমহাদেশেই। আমাদের ক্ষেত্রেও শিক্ষাব্যাবস্থা, প্রশাসন আর রাষ্ট্রীয় পেটোয়া বুর্জোয়া বাহিনী আমাদের শিক্ষাব্যবস্থাটিকে নিজেদের ভাগের মাল মনে করেন। ফলে অনেক সময়ই নানা পরিবর্তন এবং বিকৃতি আনার চেষ্টা করা হয়। ছাত্র সমাজ গর্জে উঠতে চাইলে এখানেও রাষ্ট্রীয় পোষ্য ক্যাডার বাহিনীর রোষের মুখে পড়তে হয়। ‘হোক কলরব’ গানটি শুনতে শুনতে মনে হলো, গানের কথাগুলো আকিব হায়াত এবং তার সহযোগীরা এমনভাবে বলছিলেন, যেন কলরবটা এখনই হোক। এই তাড়নাটুকু সত্যিই খুব ভালো লেগেছে। গানটির একটি কপি নিজের ফোনে সংগ্রহ করে নিয়েছি। অদূর ভবিষ্যতের কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত সঙ্কটে কানে ইয়ারফোন গুঁজে গানটি আরও একবার শুনবো। আপাতত তো শুধু প্রশংসাই করলাম, সমালোচনা করতে হলে সেটা না হয় পরেই করবো!

Promotion